সামান্য টাকায় কী ধরনের ব্যবসা করা যায়। ৪০-৪৫ হাজার?

আসলে আইডিয়া দিলে, এক মাস ধরে লিস্ট লিখে শেষ করা যাবে না। অল্প বাজেটের মধ্যে আপনি অনেক ধরনের বিজনেস করতে পারবেন।

(i) উৎপাদনশীল ব্যবসা

(ii) সার্ভিস বিজনেস

(iii) ডিজিটাল পণ্য সামগ্রীর ব্যবসা ইত্যাদি (অনলাইন এবং অফলাইন)

যেমন:

(i) আপনি যদি চান মোটামুটি একটু প্রিমিয়াম কোয়ালিটির লেডিস ব্যাগ এর ব্যবসা শুরু করতে পারবেন সেটাও কম বাজেট দিয়ে করা যাবে। ৪০ – ৬০ হাজার টাকার মধ্যে শুরু করতে পারবেন।

(ii) আবার আপনি যদি চান তাহলে, নতুন কোন ফুড আইটেম নিয়ে ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। ৪০ – ৬০ হাজার টাকার মধ্যে শুরু করতে পারবেন।

(iii) আপনি যদি চান ছেলেদের জন্য টি-শার্ট প্রিন্টিং এর ব্যবসা করতে পারবেন। ৪০ – ৬০ হাজার টাকার মধ্যে শুরু করতে পারবেন।

(iv) আপনি যদি চান মেয়েদের জন্য বিউটি প্রোডাক্ট এর ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। ৪০ – ৬০ হাজার টাকার মধ্যে শুরু করতে পারবেন।

(v) আপনি যদি চান মিনারেল ড্রিংকিং ওয়াটারের ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। ৪০ – ৬০ হাজার টাকার মধ্যে শুরু করতে পারবেন।

(vi) আপনি যদি চান অর্গানিক ফুড এবং অর্গানিক হেলথ কেয়ার আইটেমের ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। ৪০ – ৬০ হাজার টাকার মধ্যে শুরু করতে পারবেন।

(vii) মসলা তৈরি করে বাজারজাতকরণ, বাচ্চাদের খেলনা তৈরি করা, এলইডি লাইট, জুস এর ব্যবসা ইত্যাদি আসলে উদাহরণ দিলে অসংখ্য উদাহরণ দিতে পারব।

কিছু কথা শেয়ার করছি সেটা হচ্ছে,

👉 শুরুতেই, একটা ব্যবসায়ীর সবথেকে বড় যে জায়গায় সমস্যা হয় সেটা হচ্ছে প্রোডাক্ট সংগ্রহ করার জন্য টাকা খরচ করা।

👉 ভালোভাবে মার্কেটিং করে নতুন কাস্টমার নিয়ে আসার জন্য টাকা খরচ করা।

অনেকেই এই দুটো ব্যাপার খুব ভালোভাবে বুঝতে পারে না দেখে নতুন ব্যবসা কিছুদিন করার পর একজন ব্যবসায়ী বা উদ্যোক্তার কোমর ভাঙ্গা শুরু হয়ে যায় , যার কারনে তারা টিকে থাকতে পারেনা এবং শত চেষ্টা করার পরও নতুন জায়গায় ভালো কিছু করতে পারে না।

আমি এখানে আপনাকে যে দুটো পয়েন্ট এর কথা শেয়ার করলাম আপনি একটু মনোযোগ দিয়ে চিন্তা ভাবনা করে দেখবেন আপনার ক্ষেত্রেও একই সমস্যা তৈরি হবে।

এই দুটো জায়গায় এত টাকার প্রয়োজন হয় যে আসলে এর শেষ বলে কোন কথা নেই।

আপনাকে যদি আমি এখন সম্পূর্ণ ইউনিক এবং নতুন একটি আইডিয়া দেই সেই প্রোডাক্ট তৈরি করার জন্য আপনার টাকা লাগবে এবং নতুন কাস্টমার নিয়ে আসার জন্য আপনার অনেক টাকা লাগবে।

এখন কথা হচ্ছে এই প্রবলেমটাকে আপনি সমাধান করবেন কিভাবে? এই জিনিসটা আপনাকে জানতে হবে, তাহলে আপনি খুব সহজেই যে কোন নিস (niche) প্রোডাক্ট নিয়ে ব্যবসা করতে পারবেন।

তবে চিন্তা করার কোন কারন নাই, আমি এই ধরনের সমাধান নিয়ে খুব তাড়াতাড়ি হাজির হচ্ছি আমার প্রোফাইলটাকে ফলো করে রাখুন। যেখান থেকে আপনি আরো বিস্তারিত সমাধান এবং গাইডলাইন পেয়ে যাবেন।

Related Articles

আপনার ব্যবসার মার্কেটিং সোশ্যাল মিডিয়াতেই কেন করবেন?

আপনার ব্যবসার মার্কেটিং সোশ্যাল মিডিয়া তেই কেন করবেন? আপনি কি জানেন সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং কি? আমরা যে ব্যবসায় করি না কেন, সেটা কোথায় করি? যেখানে…

মুসলিমরা ভারতে হাজার বছর শাসন করার পরও হিন্দুরা সংখ্যাগরিষ্ঠ কেন?

এমন আরেকটি উদাহরণ আছে – ইন্দোনেশিয়া। এটি হিন্দু ও বৌদ্ধ প্রধান দেশ ছিল। ভারতের মতন, ব্যাপক মূর্তিপূজার প্রচলন ছিল। ইন্দোনেশিয়াতে এখনো বড় বড় মূর্তি রয়েছে।…

ব্যবসার ব্যান্ডিং করার জন্য কেন ডোমেইন ও হোস্টিং প্রয়োজন?

ডোমেইন হোস্টিং কিভাবে ব্যবসা বৃদ্ধি করতে পারে সোশ্যাল মিডিয়া কেন প্রচার দরকার সার্বিকভাবে, ডোমেইন ও হোস্টিং একটি ব্যবসাকে অনলাইনে উপস্থিত ও সক্রিয় হতে সহায়তা করে,…

 রাসেল ভাইপার বা (চন্দ্রবোড়া) সাপ সর্ম্পকে জেনে নিন

লিটন হোসাইন জিহাদ:  রাসেল ভাইপার সাপ (Daboia russelii), যা চন্দ্রবোড়া নামে পরিচিত, একটি অত্যন্ত বিষাক্ত সাপ এবং এটি বাংলাদেশ সহ দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশে পাওয়া…

বিনেটওর্য়াক: সর্ম্পকে আপনি জানেন কী,জানুন ,জয়েন্ট করুন

বিনেটওর্য়াক একটি অনন্য প্ল্যাটফর্ম যা সকল বাঙালির জন্য একত্রে যোগাযোগ, সহযোগিতা এবং উন্নতির সুযোগ প্রদান করে। এই মাধ্যমটি নানাবিধ সুবিধা ও সুযোগ নিয়ে এসেছে যা…

Responses

Your email address will not be published. Required fields are marked *